View Question 1763 views

Subject : দিনাজপুর শহরে রাস্তা প্রশস্তকরণ, দখল হয়ে যাওয়া শহরের ঘাগরা ক্যানেল খনন সহ অটো রিক্সার দৌরাত্ম্য হ্রাস প্রসঙ্গে

Avatar

Written By : TAPAS PAL

প্রিয় এমপি,

শুরুতেই দিনাজপুরের সকল জনগণের পক্ষ থেকে আপনাকে  অভিনন্দন জানাই আবারো বিপুল ভোটে জয়লাভ করার জন্য। গত বন্যার সময় আপনি যেভাবে বিরামহীন ছুটে গেছেন সাধারণ মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিতে সেটা দিনাজপুরের সকল মানুষ স্মরণ করবে সবসময়।

দিনাজপুরের মানুষের আপনার কাছে প্রত্যাশা অনেক বেশী, কিন্তু দুঃখের বিষয় গতবার পূর্ণ মেয়াদে এমপি থাকার পাশাপাশি আপনি জাতীয় সংসদের হুইপের দায়িত্ব পালনের পরেও দিনাজপুর শহরের মানুষ প্রত্যাশিত তেমন কোন পরিবর্তন দেখতে পায়নি এই শহরে। উদাহরণ হিসেবে মালদহপট্টির রাস্তা সহ শহরের অন্যান্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার কথা বলা যায় যেগুলো এত দিনে প্রশস্ত করার উদ্যোগ নেওয়া উচিত ছিল। কারণ রাস্তায় যানজট লেগেই থাকে। কিন্তু সেসকল রাস্তার প্রশস্তকরণ বিষয়ে আলোচনাও হয়নি এখনো। 

এরপর বলা যায় গিরিজানাথ ও ঘাগরা ক্যানেলের খননের কথা। বর্ষায় জলাবদ্ধতা এতদিন তো ছিলই কিন্তু গত বন্যা আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে এই খাল গুলো দখল মুক্ত করে পুনঃখনন করা কতটা প্রয়োজন। আমরা আশাবাদী ছিলাম যে বন্যার পরে খুব দ্রুত এবিষয়ে উদ্যোগ নিবেন আপনি। কিন্তু তেমন কিছুই হল না।ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা ভেবে এ বিষয়ে এখনি পরিকল্পনা নেওয়া উচিত নয়ত পরবর্তীতে শহরবাসীকে আরও ভুগতে হবে। পাশাপাশি কয়েকগুণ বেশী খরচ বাড়বে বর্তমানের থেকে। কারণ অবকাঠামো নির্মাণ থেমে নেই কোথাও। 

উপরের দুটো বিষয়ে কথা উঠলেই বাজেট স্বল্পতা, পৌরমেয়রের অসহযোগিতা, এমপির  দায়িত্ব বনাম পৌরমেয়রের দায়িত্ব এসব কথা শুনতে পাওয়া যায়। যা আমাদের মত সাধারণ মানুষদের হতাশা আরও বাড়িয়ে দেয়। সরকার বাজেট বরাদ্দ না দিলে আপনি সংসদে কথা বলেন সে বিষয়ে আমরা সেটা চাই।দিনাজপুরের কোন পৌরমেয়রের এমন ক্ষমতা নেই যে জনগণের কল্যাণের জন্য আপনি কোন কাজ করতে চাইলে সে কাজে বাঁধা দিবে। আমার বিনীত অনুরোধ এভাবে পরস্পরকে দোষারোপ না করে দয়া করে যত দ্রুত সম্ভব ওই দুটো ক্যানেল খনন করার পাশাপাশি সরু রাস্তাগুলো প্রশস্ত এবং  ভেঙ্গে যাওয়া রাস্তা গুলো দ্রুত মেরামতের ব্যবস্থা করুন। এর বাইরে সম্ভব হলে শহরের অটোরিক্সা নিয়ন্ত্রণ সহ সৌন্দর্য  বৃদ্ধির মত কিছু উদ্যোগ নিতে পারেন। 

উপরের কয়েকটা কাজ করতে পারলে আপনি নিঃসন্দেহে মানুষের মনে দীর্ঘস্থায়ী আসন পাবেন এবং পরেরবারও বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন। এবার বাকিটা আপনার উপর।

শুভকামনা ও ভালোবাসা রইল।

 

বিনীত নিবেদক,

দিনাজপুরের সাধারণ জনগণের পক্ষ থেকে

তাপস পাল